আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে বেশ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি!

এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে না যে জীবনে কোনও না কোনও সময় আক্কেল দাঁতের খপ্পরে পরেননি। তাই কম-বেশি সকলেরই জানা আছে “উইজডাম টিথ”এর যন্ত্রণা কাকে বলে। আর একবার যদি এই যন্ত্রণা শুরু হয়, তখন শুধু দাঁত নয়, সারা মুখ মন্ডল, কপাল, এমনকী চোখও যন্ত্রণা করতে শুরু করে।

আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে বেশ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি আছে, আসুন জেনে নেয়া যাক সেই ঘরোয়া পদ্ধতি গুলো কি-

১। রসুনঃ যখনই আক্কেল দাঁতের যন্ত্রণা শুরু হবে, তখনই এক কোয়া রসুন নিয়ে চিবতে শুরু করে দেবেন। দেখবেন নিমেষে কষ্ট কমে যাবে। কারণ রসুনে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান থাকে। যা যে কোনো ধরনের ব্যাথা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

২। লবণঃ দুটো রসুনের কোয়ার সাথে অল্প করে লবণ মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার সেই পেস্টটা ভাল করে আক্কেল দাঁতের উপর লাগিয়ে দিন। দেখবেন যন্ত্রণা কমে যাবে। এমনকি এক কাপ গরম জলে, এক চামচ লবণ মিশিয়ে সেই জল দিয়ে কুলি করলেও এক্ষেত্রে দরুন আরাম পাওয়া যায়।

৩। পেঁয়াজঃ আক্কেল দাঁতকে কাবু করতে পেঁয়াজ দারুন কাজে আসে। এক্ষেত্রে অল্প করে পেঁয়াজ চিবিয়ে নিতে পারেন অথবা আক্কেল দাঁতের উপর রেখে দিলেও উপকার পাওয়া যায়। অথবা, পরিমাণ মতো পেঁয়াজ নিয়ে তার থেকে রস বের করে নিন। তারপর সেই রস আক্কেল দাঁতের উপর ধীরে ধীরে লাগিয়ে দিন। এটা করলে দেখবেন চোখের পলকে ব্যাথা কমে যাবে।

৪। টি-ট্রি অয়েলঃ একটা তুলোতে অল্প করে এই তেল নিয়ে দাঁতের উপর ৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। নিমিষেই যন্ত্রণা কমে যাবে। কারণ এই তেলে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি উপাদান নিমেষে ব্যাথা কমিয়ে দেয়। ফলে ধীরে ধীরে কষ্ট কমতে শুরু করে।

৫। পেয়ারা পাতাঃ আগেকার দিনে দাঁতে ব্যথা হলেই পেয়ারা পাতা চিবোনোর পরামর্শ দিতেন মুরুব্বীরা। তবে এই সহজ পদ্ধতিটিকে বর্তমান যুগে কেউ কাজে লাগান না। পেয়ারা পাতায় উপস্থিত অ্যানালজেসিকস নামে একটি উপাদান আছে, যা চোখের পলকে যন্ত্রণা কমিয়ে দেয় , সেই সঙ্গে দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াদেরও মেরে ফেলে। ফলে শুধু আক্কেল দাঁতের সমস্যাই নয়, সেই সাথে অন্য সব দাঁতের রোগ সেরে যায়।

৬। লবঙ্গঃ প্রাকৃতিক পেনকিলার হিসেবে বেশ নাম রয়েছে লবঙ্গের। এতে উপস্থিত ইউজেনল নামে একটি উপাদান সঙ্গে সঙ্গে ব্যথা কমিয়ে দেয়। ফলে যন্ত্রণা যে হচ্ছে তা টের পাওয়া যায় না। এসব ক্ষেত্রে লবঙ্গ তেল ব্যবহার করলেও সমান উপকার পাওয়া যায়।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন